রবিবার, ৬ ফেব্রুয়ারী, ২০১১

এলিট এইটে বাংলাদেশ

কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনের পাশে অথবা মতিঝিল শাপলা চত্তর ক্রস করার সময় বিশ্বকাপের মাসকট ষ্ট্যাম্পিকে বেশ চোখে লাগে| কাকা আর মেসির আদলে বানানো তামিম আর সাকিবের করা পেপসির বিজ্ঞাপনও রাস্তার সড়ক দ্বীপ থেকে আমার দৃষ্টি বিলবোর্ডের দিকে সরিয়ে নেয়| মিরপুর স্টেডিয়ামের সামনের সোডিয়াম বাতিগুলি হলুদ আলোর বদলে গোলাপী আলো ছড়াচ্ছে | বিশ্বকাপের বিশাল বিজ্ঞাপন ওভারব্রীজ গুলি দখল করে নিয়েছে , পুরানা পল্টনের রাস্তার পাশে চুনকাম হওয়ার আগেই |ঢাকা নগরী ব্যস্ত হচ্ছে এই মহা আয়োজকে সামনে রেখে | ফুটপাথ থেকে হকারদেরও সরিয়ে ফেলা হয়েছে, এই টুর্নামেন্টের নিরাপত্তার জন্য |  ক্রিকেট পাগলরা কেউ বসে নেই- বাসে যাতায়াতের সময় পলিটিক্স আর বাসের ভাড়া নিয়ে ক্যাচালের পাশাপাশি ক্রিকেট এখন মুখরোচক বিষয় |
প্রথম আলো ২০-০২-২০১১ থেকে
বিশ্বকাপের জ্বর আমাকে এখনো ধরতে পারেনি কারণ এই বছরটা আমি আর আমার বেশির ভাগ বন্ধুরাই দলছুট, তাই একসাথে বসে খেলা দেখার উত্তাপটা নেই, আমরা ক্রিকেট বিশ্বকাপ উপলক্ষে পাওয়া চারদিনের ছুটি কাটানোর প্ল্যান  নিয়ে ব্যস্ত | এইসব আয়োজন-বিয়জোনের মাঝে এই খবর বঙ্গদেশের ক্রিকেট-আমোদীদের জন্য খুবই আনন্দের :


আইসিসির ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে এক ধাপ এগিয়ে গেল বাংলাদেশ। উঠে এল আটে। ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ে এটাই বাংলাদেশের সর্বোচ্চ অবস্থান।

আজ শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ম্যাচ ও সিরিজ হেরে যাওয়ায় নেমে গেল নয়ে। এ কারণেই বাংলাদেশের এই উন্নতি। দু-দলেরই রেটিং পয়েন্ট অবশ্য সমান, বাংলাদেশের ৬৬, ওয়েস্ট ইন্ডিজেরও তা-ই। তবে বাংলাদেশের মোট পয়েন্ট বেশি। ৩২ ম্যাচে ২১২১, ওয়েস্ট ইন্ডিজের ২০ ম্যাচে ১৩২১। 
খবরটা দেখেই ২০০৭ সালের ফিক্চারের কথা মনে পড়ে | ICC এর আতেলরা এমন ভাবে গ্রুপিং করে ছিল, যেনো রেঙ্কিংয়ের নিচের সারির দেশগুলি গ্রুপ পর্যায়ে ঝরে পড়ে, ক্রিকেটের এলিট শ্রেনীর জন্য আলাদা করে করা হয় Super 8 Stage |

তারপরও টাইগার আর আইরিশরা ঠিকই এলিটদের লিগে আলাদা করে হানা দেয় | এই পরিবর্তিত সময়ে এলিটদের তৈরী রেন্কিং সিস্টেমে বাংলাদেশ আজ শেষ আটের একটা দল | যদিও এই রেন্কিংকে 'ঝড়ে মরলে বক, ফকিরের বাড়ে কেরামতি'র মতো মনে হয়েছে , তারপরও ইহাই 'সরকারী'| বাংলাদেশ দলকে ছোট্ট একটা অভিনন্দন; আর বড় অভিনন্দন দিবো ভালো খেলে রেন্কিং সমুন্নত রাখার পর | 


এই ভালো খবরের পরও খারাপ পারফর্মেন্সের আতঙ্ক কাজ করে | বাংলাদেশ বাদে প্রায় সব টেস্ট খেলুড়ে দেশ বিশ্বকাপের আগে ওয়ানডে সিরিজ খেলে নিজেদের চাঙ্গা রাখসে, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডএর উছিত ছিল , এই সময়টায় বাংলাদেশ কে আরও ওয়ানডে খেলার ব্যবস্থা করে দেওয়া , কিন্তু তা হয়নি | আশংকা হয় প্র্যাকটিস না থাকার কারণে বাংলাদেশের পারফরমেন্স খারাপ না হয়ে যায়!বাংলাদেশের জয় হোক|
একটি মন্তব্য পোস্ট করুন